1. admin@jn24news.com : admin :
  2. mail.bizindex@gmail.com : newsroom :
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১২:৪৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
লিপ ইয়ারে সুসংবাদ দিলেন দীপিকা-রণবীর! জিডিপিতে বিমার অবদান বৃদ্ধি বাড়াতে সরকার কাজ করছে: প্রধানমন্ত্রী বাড়ছে করোনা, এ মাসেই মৃত্যু ৮ জনের ইউটিউব দেখে খতনার চর্চা গিয়ে প্রতিবেশী কিশোরের হাতে শিশুর মৃত্যু ভিকারুননিসায় ছাত্রীদের যৌন হয়রানির বিভিন্ন তথ্য পাওয়া গেছে: পুলিশ সাবেক স্বামীর মৃত্যুর পর চিকিৎসক লতাও মারা গেলেন নতুন মাত্রায় অপরাধ মোকাবিলায় পুলিশকে প্রস্তুত থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী পশ্চিমারা রুশকে নতুন অস্ত্র প্রতিযোগিতায় টেনে আনতে চায়: পুতিন ঢাকা বার নির্বাচন কেন্দ্র করে উত্তেজনা, জজকোর্ট চত্বরে ককটেল বিস্ফোরণ বিসিএস নির্বাচনে ড. আরেফিন-ববী প্যানেলের নিরস্কুশ বিজ বাংলাদেশ কম্পিউটার সোসাইটির কেন্দ্রীয় ব্যবস্থাপনা

বাবা-মাকে হারিয়ে বিশাল জনগোষ্ঠী পেয়েছি, দেশের মানুষই আমার পরিবার ও শক্তি: প্রধানমন্ত্রী

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৯৫ Time View

জেএন ২৪ নিউজ ডেস্ক: দেশের মানুষই তার পরিবার ও আপনজন বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১৯৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, বাবা-মাকে হারিয়ে বিশাল জনগোষ্ঠী পেয়েছি। বাবা-মাকে হত্যা করার পরে আমাদের দেশে আসতে দেয়নি জিয়াউর রহমান। তারপরও সবকিছু উপেক্ষা করেই দেশে এসেছি মানুষের সেবা করতে, সেটাই করে যাচ্ছি। দেশের মানুষই আমার আপনজন, তারাই পরিবার, তারাই আমার সমস্ত শক্তি।

বৃহস্পতিবার গণভবনে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। দেশে এই প্রথমবারের মতো জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস পালন করা হলো।

শেখ হাসিনা বলেন, আজ গণভবনের মাটি ধন্য। এই গণভবনে দেশের গণমানুষে আসছে এবং জনপ্রতিনিধিরা আসছে। এটাই আমাদের উদ্দেশ্যে ছিল। গণভবন আজ গণমানুষের ভবন হিসেবে প্রতিয়মান হয়েছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন, এদেশের মানুষ ভাগ্য পরিবর্তন করার জন্য, ক্ষুধা দারিদ্র্যমুক্তি দেশ গঠন করার জন্য। সেই তৃণমূল মানুষের প্রতিনিধি হিসেবে আজ আপনরা গণভবনে এসে বক্তব্য দিয়েছেন।

তিনি বলেন, এর জন্য বঙ্গবন্ধুর প্রতি আমি শ্রদ্ধা জানাই। তিনি দিয়ে গেছেন একটি স্বাধীন ও মর্যাদাশীল জাতি।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘স্বাধীনতার পরে যখন বঙ্গবন্ধু দেশের মানুষের মাঝে স্বাধীনতার সুবিধা পৌঁছে দিতে শুরু করেছিলেন তখনই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়। পরিবারের সবাইকে হত্যা করা হয়। আমি আর ছোট বোন রেহানা বিদেশে থাকার কারণে প্রাণে বেঁচে গেয়েছিলাম। বাবা-মাকে হারিয়ে বিদেশে রিফিউজি (শরণার্থী) হিসেবে থাকতে হয়েছে। আমার ছোট বোন রেহানা পাসপোর্টটাও জিয়াউর রহমান দেয়নি। পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু নবায়ন করতে দেয়নি জিয়াউর রহমান।’

সামরিক শাসকের রক্তচক্ষু ও নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ১৯৮১ সালের ১৭ মে প্রিয় স্বদেশভূমিতে প্রত্যাবর্তন করেন শেখ হাসিনা। দীর্ঘ ৬ বছর নির্বাসন শেষে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে ফিরে আসেন তিনি। এরপর নানান অন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ফের ক্ষমতায় আসে।

এসব প্রসঙ্গ টেনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার অনুপস্থিতিতে আমাকে আওয়ামী লীগের সভাপতি করেছিল নেতাকর্মীরা। এজন্য দেশের জনগণ ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ জানাই। বাবা মাকে হারিয়ে আমি পেয়েছি বিশাল জনগোষ্ঠী। দেশের মানুষই আমার আপনজন, তারাই পরিবার, তারাই আমার সমস্ত শক্তি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে আমাদের পথচলা। তার আদর্শ নিয়েই আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করেছে।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইউক্রেন রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে সবকিছুর দাম বেড়ে গেছে। বাইরে থেকে আমাদের অনেক কিছু আনতে হয়।

বক্তব্যে ডেঙ্গুর প্রকোপ থেকে বাঁচতে জনগণকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার আহ্বান জানান সরকারপ্রধান। বলেন, মশা মেরে শেষ করা যাবে না। সব মানুষকে পরিষ্কার-পরিছন্ন থাকতে এবং সবাইকে সচেতন হবে।

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় বিএনপির আমল থেকে প্রায় ছয়গুণ বেশি বরাদ্দ দিচ্ছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপির আমলে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছিল প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকা। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এসে ২২-২৩ অর্থ বছরে প্রায় ৪৬ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়। বিএনপির আমল থেকে প্রায় ছয়গুণ বেশি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

যেসব জনপ্রতিনিধি বিভিন্ন অপকর্মের কারণে সাময়িক বরখাস্ত এবং মামলার আসামি হয়েছেন তাদেরকে ছাড়া দেশের সব সিটি করপোরেশনের মেয়র ও কাউন্সিলর, পৌর মেয়র ও কাউন্সিলর, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। প্রায় ৮ হাজার জনপ্রতিনিধি এ অনুষ্ঠানে অংশ নেন। সকাল ১১টা থেকে শুরু হয়ে অনুষ্ঠান চলে দুপুর ৩টা পর্যন্ত।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews