1. admin@jn24news.com : admin :
  2. mail.bizindex@gmail.com : newsroom :
সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:২৭ পূর্বাহ্ন

২০২১ সালে সিআইপি হলেন ৪৪ জন ব্যবসায়ী, জানুন তাদের নিয়ে

  • Update Time : মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল, ২০২৩
  • ৪৭ Time View

জেএন ২৪ নিউজ ডেস্ক: দেশের বেসরকারি খাতে শিল্প স্থাপন, পণ্য উৎপাদন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং জাতীয় আয় বৃদ্ধিসহ দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলাদেশ সরকারের সিআইপি (শিল্প) নীতিমালা-২০১৪ অনুযায়ী নিন্মোক্ত কোটা/ক্যাটাগরিতে ৪৪ জন ব্যক্তিকে ২০২১ সালের জন্য ‘বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (শিল্প)’ বা সিআইপি হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ৩ এপ্রিল একটি গেজেট প্রকাশ করেছে সরকার। একইদিন শিল্প মন্ত্রণালয় একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

এসসিআইডি ক্যাটাগরিতে ছয়জন মনোনীত হয়েছেন। তারা হলেন- এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, বাংলাদেশ এমপ্লায়ার্স ফেডারেশনের (বিইউএফ) সভাপতি কামরান তানভিরুর রহমান, বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন, ফরেন ইনভেস্টর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফআইসিসিআই) সভাপতি মিজ রুপালি হক চৌধূরি, বাংলাদেশ নীটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিকেএমইএ) সভাপতি এ কে এম সেলিম ওসমান, বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রিজ বা বিসিআই)-এর সভাপতি আনোয়ার উল আলম চৌধুরী।

বৃহৎ শিল্প (উৎপাদন):

বৃহৎ শিল্প উৎপাদনে যেসব প্রতিষ্ঠানের নাম রয়েছে-

স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা অংশীদার এরিক এস. চৌধুরী, বিএসআরএম স্টীলস লিমিটেড চেয়ারম্যান আলী হোসাইন আকবর আলী, প্রাণ ডেইরি লিমিটেডের চেয়ারম্যান মো. ইলিয়াস মৃধা, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোবারক আলী, জাভের অ্যান্ড জোবায়ের ফেব্রিক্স লিমিটেডের উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুল্লাহ জাবের, অ্যাডভান্সড কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. আরিফ দৌলা, পপুলার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. মুস্তাফিজুর রহমান, আবদুল মোমেন লিমিটেডের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ, এস,এম মাঈনউদ্দিন মোনেম, ফারিহা নীট টেক্স লিমিটেডের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ মামুন ভূঁইয়া, স্কয়ার ফুট অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী, হ্যামস গার্মেন্টস লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মো. সফিকুর রহমান, বাদশা টেক্সটাইলস লিমিটেডের উদ্যোক্তা পরিচালক কামাল উদ্দিন আহাম্মদ, মীর সিরামিকস লিমিটেডের পরিচালক মিজ্ মাহরীন নাসির, ডিউরেবল প্লাস্টিক লি. এর পরিচালক উজমা চৌধুরী, রানার অটোমোবাইল লি. এর চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান, উইনার স্টেইনলেস স্টীল মিলস লি. এর চেয়ারম্যান মো. সোহেল রানা, তাসনিয়া ফেব্রিক্স লিমিটেডের উদ্যোক্তা পরিচালক আহমেদ আরিফ বিল্লাহ, সোহাগপুর টেক্সটাইল মিলস লিমিটেডের চেয়ারম্যান আব্দুল হাই সরকার, এনভয় টেক্সটাইলস লি. এর চেয়ারম্যান কুতুবউদ্দিন আহমেদ এবং কনফিডেন্স পাওয়ার হোল্ডিংস লিমিটেডের ভাইস চেয়ারম্যান ইমরান করিম।

বৃহৎ শিল্প (সেবা)

বৃহৎ শিল্প সেবা হিসেবে সম্মাননা পেয়েছেন পাঁচজন। তারা হলেন- এস,টি,এস হোল্ডিংস লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক খন্দকার মনীর উদ্দীন, এসবি টেল এন্টারপ্রাইজেস লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকারিয়া শাহিদ, দি সিভিল ইঞ্জিনিয়ার্স লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মো. আতিকুর রহমান, কনকর্ড রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের চেয়ারম্যান এস এম কামাল উদ্দিন, ইষ্টার্ন হাউজিং লি. এর চেয়ারম্যান মনজুরুল ইসলাম।

মাঝারি শিল্প (উৎপাদন)

মাঝারি শিল্প উৎপাদনে বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে মনোনীত হয়েছেন, বিশ্বাস পোল্ট্রি অ্যান্ড ফিস ফিডস লিমিটেডের চেয়ারম্যান মো. মাহবুবুর রহমান, ইনসেপ্টা ভ্যাকসিন লিমিটেডের ভাইস চেয়ারম্যান মিজ্ আক্তার জাহান হাসনিন মুক্তাদির, অকো-টেক্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুস সোবহান, জিন্নাত নিটওয়্যারস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আব্দুল জব্বার, রোমানিয়া ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ুন কবির বাবলু, প্রমি এগ্রো ফুডস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. এনামুল হাসান খান, মাসকো পিকাসো লিমিটেডের পরিচালক মিজ্ ফাহিমা আক্তার, টর্ক ফ্যাশনস লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক, মূহাম্মদ কামাল উদ্দিন, জিন্নাত এপ্যারেলস লিমিটেডের চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ, মেসার্স রিটাডেল এ্যাপারেলস লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মাহিদুল ইসলাম খান।

ক্ষুদ্র শিল্প (উৎপাদন)

ক্ষুদ্র শিল্প উৎপাদনে নাম এসেছে রংপুর ফাউন্ড্রী লি. এর পরিচালক চৌধুরী কামরুজ্জামান এবং এরফান এগ্রো ফুড লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মাহবুব আলম।

মাইক্রো শিল্প

সবশেষ মাইক্রো শিল্প ক্যাটাগরিতে মাসকো ডেইরী এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধিকারী এম. এ. সবুর সম্মাননা পেয়েছেন।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, উপরোক্ত সিআইপি (শিল্প) একবছরের জন্য যেসব সুযোগ-সুবিধা পাবেন:

(ক) শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে সিআইপি (শিল্প) সংক্রান্ত একটি পরিচয়পত্র পাবেন। পরিচয়পত্রে মেয়াদকাল উল্লেখ থাকবে এবং মেয়াদকালীন সময়ে পরিচয়পত্রটি বাংলাদেশ সচিবালয়ে প্রবেশের জন্য প্রবেশপত্র হিসেবে গণ্য হবে।

(খ) বিভিন্ন জাতীয় অনুষ্ঠানে এবং সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক আয়োজিত নাগরিক সংবর্ধনায় আমন্ত্রণ পাবেন।

(গ) ব্যবসা সংক্রান্ত কাজে ভ্রমণের সময় বিমান, রেলপথ, সড়ক ও জলপথে চলমান সরকারি যানবাহনে আসন সংরক্ষণে অগ্রাধিকার পাবেন।

(ঘ) ব্যবসা সংক্রান্ত কাজে বিদেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে ভিসা প্রাপ্তির জন্য তাঁর অনুকূলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হতে সংশ্লিষ্ট দূতাবাসকে Letter of Introduction (Lol) প্রদান করবে।

(ঙ) স্ত্রী, পুত্র, কন্যা ও নিজের চিকিৎসার জন্য সরকারি হাসপাতালে কেবিন সুবিধা প্রাপ্তিতে অগ্রাধিকার পাবেন।

(চ) বিমান বন্দরে ভিআইপি লাউঞ্জ-২ ব্যবহারের সুবিধা পাবেন; এবং (ছ) মেয়াদকালীন সময়ে সরকার কর্তৃক তাঁকে শিল্প বিষয়ক নীতি নির্ধারণী কোন কমিটিতে সদস্য হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করা যাবে।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়েছে, সিআইপি (শিল্প) হিসেবে প্রাপ্ত পরিচয়পত্র মেয়াদ উত্তীর্ণের পর সাতদিনের মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ে ফেরত দিতে হবে।

সরকার গেজেট প্রজ্ঞাপন দ্বারা যেকোন ব্যক্তির সিআইপি (শিল্প) হিসেবে প্রদত্ত উপর্যুক্ত সুযোগ সুবিধা মেয়াদকালীন যে কোন সময় জনস্বার্থে প্রত্যাহার করতে পারবে। এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews