1. admin@jn24news.com : admin :
  2. mail.bizindex@gmail.com : newsroom :
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৯:৩৮ পূর্বাহ্ন

১৬০ বারেরও বেশি ভূমিকম্পে কাঁপল ইতালির নেপলস

  • Update Time : বুধবার, ২২ মে, ২০২৪
  • ৯ Time View

অনলাইন ডেস্ক : ইতালির দক্ষিণাঞ্চলে নেপলসের আশপাশের এলাকায় অনেকগুলো ভূমিকম্পের পর বাড়িঘর খালি করা হয়েছে এবং বহু স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যা ও রাতে ১৬০টিরও বেশি ভূমিকম্প রেকর্ড করা হয়েছে।

সবচেয়ে শক্তিশালী ৪ দশমিক ৪ মাত্রার কম্পন পোজুলি শহরের কাছে স্থানীয় সময় রাত ৮টার দিকে অনুভূত হয়। ইতালির ভূপদার্থবিদ্যা ও আগ্নেয়গিরি বিষয়ক জাতীয় ইনস্টিটিউট (আইএনজিভি) বলছে, অঞ্চলটিতে ৪০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্প এটি। নেপলসের মেয়র গায়েতানো মানফ্রেদি স্বীকার করেছেন যে, বাসিন্দারা ভয় পেয়ে থাকতে পারে। তবে কর্মকর্তারা পরিস্থিতি নজর রাখছে বলে জানান তিনি।

ভূমিকম্পের পর পোজুলিতে শতাধিক তাঁবু টানানো হয়। কিছু বাসিন্দা রাতের বেশিরভাগ সময় রাস্তাতেই কাটিয়েছে। কেউ কেউ আবার অন্য জায়গায় আত্মীয়দের কাছে চলে যায়। স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, গত কয়েক মাসে কমমাত্রার কয়েকদফা ভূমিকম্প হওয়ার কারণে বেশ কয়েকটি পরিবার এলাকা ছেড়ে যাওয়ার কথা ভাবছে।
একটি গণমাধ্যম নেপলসের এক বাসিন্দার উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছে, তারা কখনও এত শক্তিশালী ভূমিকম্প অনুভব করেনি। এক ব্যক্তি ইল মাত্তিনো পত্রিকাকে বলেছেন, “এবারের ভূমিকম্প জোরাল ছিল, মনে হয়েছিল একম্পন কখনও শেষ হবে না।”

যদিও ভূমিকম্পে অবকাঠামোগত কোনও উল্লেখযোগ্য ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। তারপরও নেপলসের কিছু স্কুল মঙ্গলবার পরিদর্শন করার জন্য বন্ধ রাখা হয় এবং পোজুলিতে নারীদের একটি কারাগার পূর্বসতর্কতা হিসেবে খালি করা হয়।

মেয়র মানফ্রেদি ভবিষ্যতে ‘আরও গুরুতর ভূমিকম্প হতে পারে’ বলে সতর্ক করেছেন। বলেছেন, “কর্মকর্তাদেরকে সেই জরুরি পরিস্থিতি সামাল দিতে হবে, যে পরিস্থিতিতে আমাদেরকে কয়েক মাস থাকতে হতে পারে।”

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, “আমি মানুষকে ভয় না করার জন্য বলতে পারি না। কারণ এটি স্বাভাবিক। তবে আমি নেপলবাসীদের বলতে পারি যে, আমরা (পরিস্থিতির দিকে) মননিবেশ করছি এবং নজরে রাখছি। এর আগে কখনও এ অঞ্চলের পরিস্থিতি এত নিবিড়ভাবে নজরে রাখা হয়নি, তাই আসুন আমরা যতটা সম্ভব স্বাভাবিকভাবে বেঁচে থাকার চেষ্টা করি।”
সূত্র- বিবিসি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews