1. admin@jn24news.com : admin :
  2. mail.bizindex@gmail.com : newsroom :
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১০:১৫ পূর্বাহ্ন

সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিয়ে বিএনপি নেতাদের বক্তব্য লজ্জার: প্রধানমন্ত্রী

  • Update Time : শুক্রবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৫৩ Time View

জেএন ২৪ নিউজ ডেস্ক: সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিয়ে বিএনপি নেতাদের বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বলেছেন, পেনশন স্কিম নিয়ে বিএনপি নেতাদের বক্তব্য লজ্জার।

তিনি বলেন, পেনশনের টাকা খোয়া যাবে না। মানুষের ভবিষ্যতের জন্য এই পেনশন করা হয়েছে। বিএনপি নিজেরা কিছু করতে পারে না তাই অন্যেরটা দেখতে পারে না।

শুক্রবার বিকালে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ছাত্রসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের স্মরণে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ এই ছাত্রসমাবেশের আয়োজন করে।

বক্তব্যে বর্তমান সরকারের উন্নয়ন যারা চোখে দেখেন না, তাদের দশ টাকায় চোখ পরীক্ষা করানোর পরামর্শও দেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, যারা চোখ থাকতেও সরকারের উন্নয়ন চোখে দেখে না, তাদের উচিত দশ টাকার টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করানো। আসলে তাদের মনের দরজায় অন্ধকার।

ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, এক ইঞ্চি জমিও খালি না রাখার আহবান জানিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মী শেখ হাসিনা বলেন, এক ইঞ্চি জমিও খালি না রাখার যাবে না। যাদের জমি খালি আছে তাদেরকে গাছলাগানোর পরামর্শ দিতে হবে। অনাবাদি জমিতে চাষ করতে হবে। আমাদের খাদ্য যদি আমরা উৎপাদন করতে পারি তাহলে কারো দিকে তাকাতে হবে না। যুদ্ধের পরে খাদ্যভর্তি জাহাজ বাংলাদেশে আসতে দেয়নি। নিজেদের খাদ্য উৎপাদন করতে না পারলে অন্যের থেকে আনতে হবে।

বিএনপি-জামায়াতের সমালোচনা করে সরকারপ্রধান বলেন, বিএনপির কিছু নেতা বলছে পেনশন নাকি নির্বাচনি অর্থ সংগ্রহ করার জন্য। এর থেকে লজ্জার আর কী হতে পারে। বিএনপি নিজেরা কিছু করতে পারে না তাই অন্যেরটা দেখতে পারে না। আমি ছাত্রলীগকে বলব আপনাদের দায়িত্ব নিতে হবে, মানুষকে বলতে হবে পেনশনের টাকা খোয়া যাবে না। মানুষের ভবিষ্যতের জন্য এই পেনশন করা হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ২০৪১ সালে বাংলাদেশ হবে উন্নত। সেভাবেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। এছাড়া ১০০ বছরের জন্য ডেল্টা প্লান করেছি। ছাত্রলীগকে এর দায়িত্ব নিতে হবে। বাংলাদেশের অগ্রগতি কেউ বাধাগ্রস্ত করতে পারবে না। ছাত্রলীগকে অতন্দ্রপহরী হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে হবে। যাতে করে দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি বাধাগ্রস্ত করতে না পারে। স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণে ছাত্রলীগকে ভূমিকা পালন করতে হবে। দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণে ক্ষেত্রে দায়িত্ব পালন করতে হবে। এই স্মার্ট বাংলাদেশ নতুন প্রজম্মের জন্য।

ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেনের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালি আফিস ইনানের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

এছাড়া দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সাংগঠনিকসহ সাবেক ছাত্রলীগের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews