1. admin@jn24news.com : admin :
  2. mail.bizindex@gmail.com : newsroom :
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন

মধুখালী পাটকল শ্রমিক গণধর্ষণ ও হত্যায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

  • Update Time : সোমবার, ২৪ জুলাই, ২০২৩
  • ১৩৭ Time View

জেএন ২৪ নিউজ ডেস্ক: ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলায় পাটকল শ্রমিক কাজল রেখা কাজলীকে (৩২) গণধর্ষণ ও হত্যার দায়ে দোষী সাব্যস্ত করে ৫ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ সময় তাদের প্রত্যেককে ১ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়।
সোমবার বিকাল সোয়া ৪টায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হাফিুজর রহমান এ আদেশ দেন।
রায় ঘোষণার সময় সকল আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় শেষে আসামিদের পুলিশ প্রহরায় জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত আসামিরা হলেন- চুন্নু সিকদার, মো. নাজমুল হোসেন তেবেজ, ইসলাম মীর, আতিয়ার মোল্যা, মো. নাছির খান নয়ন। প্রত্যেকের বাড়ি মধুখালী উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ভিকটিম কাজল রেখা কাজলী ফরিদপুরে মধুখালী উপজেলার রাজধরপুর প্রাইড জুট মিলে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। ২০১৯ সালের অক্টোবর মাসের ১৫ তারিখে ওভারটাইম ডিউটি করতে সাড়ে ১১টার দিকে বের হলে। পথিমধ্যে নছিমন চালক চুন্নু সিকদার প্রথমে তাকে রাজধরপুর বাবু মিলিটারির কলাবাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে কাজল রেখাকে ধর্ষণ করতে দেখে ফেলায় অন্য চার আসামি তেবেজ, ইসলাম মীর, আতিয়ার ও নাছির তারাও পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে এ ঘটনা কাজল রেখা কাউকে বলে দিলে তাদের মান হানি হবে ভেবে ৫ আসামি মিলে তাকে গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে কলা বাগানে ফেলে রেখে যায়। পরের দিন সকালে স্থানীয়রা কলাবাগানে লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করে।
কাজল রেখাকে হত্যা তার মা কল্যাণী বিশ্বাস পরে দিন ১৬ অক্টোবর মুধুখালী থানায় বাদী হয়ে ধর্ষণ ও হত্যা মামলা দায়ের করেন। কাজল রেখার বাড়ি মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলার বরালিদহ গ্রামে। কাজের সুবাদে কাজলী মধুখালী থানার রাজধরপুর গ্রামের লাকী বেগমের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।
পরে এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মধুখালী থানার এস আই সাহেব আলী ও সাইফুল আলম ডিসেম্বর মাসের ৩১ তারিখে মোবাইলের কল লিস্ট যাচাই বাছাই শেষে ওই ৫ জন আসামি উল্লেখ করে আদালতে চার্জশিট জমা দেন। আদালত দীর্ঘ সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে ৫ জন আসামির বিরুদ্ধে আনিত অপরাধ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাদের প্রত্যেককে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করেন। সঙ্গে প্রত্যেককে ১ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়।
এ মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাড. স্বপন কুমার পাল বলেন, আসামিরা প্রত্যেকে নিজেদের দোষ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি প্রদান করেছে। এর মধ্যে আসামি নয়ন ভিকটিক কাজল রেখাকে হত্যার পরও ধর্ষণ করে। আদালত নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৯(৩) ধারাসহ ৩০২/৩৪ ধারায় আসামিদের মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন। এ রায়ে রাষ্ট্রপক্ষ সন্তুষ্ট। এতে সমাজে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews