কাতার বিশ্বকাপে মরক্কোর স্বপ্ন ভেঙ্গে টানা দ্বিতীয়বার ফাইনালে ফ্রান্স - Jn24 News

কাতার বিশ্বকাপে মরক্কোর স্বপ্ন ভেঙ্গে টানা দ্বিতীয়বার ফাইনালে ফ্রান্স

লেখক: প্রতিবেদক ঢাকা
প্রকাশ: ডিসেম্বর ১৫, ২০২২

জেএন ২৪ নিউজ ডেস্ক: কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপপর্ব থেকেই একের পর এক অঘটন ঘটিয়ে সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করা মরক্কোর সামনে স্বপ্নের ফাইনালে উঠার সুযোগ ছিল। কিন্তু শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে উঠার ক্ষেত্রে ফ্রান্স বাধা পেরোতে পারল না আফ্রিকান দেশটি। দ্বিতীয় সেমিফাইনাল ম্যাচে মরক্কোকে ২-০ গোল ব্যবধানে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বার ফাইনালে উঠল দেশামের শিষ্যরা।

শিরোপার লড়াইয়ে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনার বিপক্ষে মাঠে নামবে ফ্রান্স ফুটবল দল। প্রথম সেমিফাইনাল ম্যাচে বর্তমান রানারআপ ক্রোয়েশিয়াকে ৩-০ গোল ব্যবধানে হারিয়ে প্রথম দল হিসেবে ফাইনালে উঠে আর্জেন্টিনা। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ১৮ ডিসেম্বর। আল বায়াত স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে বল দখলে খানিকটা এগিয়ে ছিল মরক্কো, অন্যদিকে আক্রমণে ফ্রান্সের সঙ্গে সমানতালেই খেলেছে হাকিমি। পুরো ম্যাচের ৬২ শতাংশ সময় নিজেদের কাছে বল রাখতে সক্ষম হয় আফ্রিকান দলটি। আর প্রতিপক্ষের গোলবার বরাবর শট নিতে পেরেছে তিনটি। কিন্তু পায়নি গোলের দেখা।

অন্যদিকে বল দখলে খানিকটা পিছিয়ে ছিল ফরাসি ফুটবলাররা। পুরো ম্যাচের ৩৮ শতাংশ সময় নিজেদের নিয়ন্ত্রণে বল রাখতে পারে চ্যাম্পিয়ন দলটি। আর মরক্কোর গোলবারে শট নিয়েছে তিনটি। গোল পেয়েছে মোট দুটি।

শিরোপা ধরে রাখার মিশনে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে খেলতে নেমে থিও হার্নান্দেজের বা পায়ের দারুণশটে ম্যাচের পঞ্চম মিনিটের মাথায় ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো প্রতিপক্ষ ফুটবলারের কাছ থেকে গোল হজম করে মরক্কো।

গোল হজম করা মরক্কো ১১তম মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে উনাহির নেয়া দুর্দান্ত শট রুখে দেন ফ্রেঞ্চ গোলরক্ষক হুগো লরিস। ১৮তম মিনিটে ডি বক্সে বল পেয়েও দলকে সমতায় ফেরাতে পারেননি জিয়েচ৷

আর ৪১তম মিনিটে গ্রিজম্যানের কর্নার থেকে ভারানের ডান পায়ের শট আবারো লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে বাইরে চলে যায়। অন্যদিকে প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে এল ইয়ামিকের নেয়া বাই-সাইকেল কিক গোলবারে লাগলে গোল পায়নি আফ্রিকান দলটি। প্রথমার্ধ শেষ হয় ১-০ গোল ব্যবধানেই।

দ্বিতীয়ার্ধের খেলায় সমতায় ফেরার লক্ষ্যে একের পর এক আক্রমণ চালায় মরক্কো। কিন্তু মিলছিল না কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা। উল্টো ম্যাচের ৭৯তম মিনিটে গোল খেয়ে বসে আরও একটি। দলের হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন রানডাল কোলো মুয়ানি। আন্তর্জাতিক ফুটবলে এটাই তার প্রথম গোল। শেষ পর্যন্ত আর কোনো গোল না এলে ২-০ ব্যবধানে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়েন এমবাপ্পে-গ্রিজম্যানরা।

ফ্রান্স একাদশ: (ফরমেশন ৪-২-৩-১)

হুগো লোরিস, কুন্ডে, ইব্রাহিম কোনাটে, ভারান, হার্নান্দেজ, ফোফানা, অরেলিয়েন টিচুয়ামেনি, ওসমানে ডেম্বেলে, অলিভার জিরু, আন্তোনিও গ্রিজম্যান, কিলিয়ান এমবাপ্পে

কোচ: দিদিয়ের দেশম

মরক্কোর একাদশ: (ফরমেশন: ৪-৩-৩)

ইয়াসিন বৌনৌ, রোমেন সাইস, নায়েফ আগুয়ের্ড, নউসায়ের মাজরাউই, আশরাফ হাকিমি, সোফিয়ানে আমরাবাত, এল ইয়ামিক, আজাদিনে ওউনাহি, ইউসেফ আন নাসিরি, সোফিয়ানে বৌফাল, হাকিম জিয়েচ।